ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৪৮ নম্বর ওয়ার্ডের নগরবাড়ী এলাকায় প্রায় আধা কিলোমিটার সড়কে প্রায় চার বছর ধরে জমে রয়েছে ড্রেনের পানি। ময়লা পানি দিয়ে সড়ক ভেসে গেলেও তা সরানোর নেই কার্যকরী কোনো উদ্যোগ। ফলে বৃষ্টি ছাড়াই ড্রেনের ময়লা পানি মাড়িয়ে কাজে বের হতে হয় এলাকাবাসীকে। বহু বছর ধরে এ অবস্থার জন্য এলাকাবাসী জনপ্রতিনিধিদেরই দায়ী করছেন। তাদের অভিযোগ, ড্রেনেজব্যবস্থা বিকল হওয়াই এই পানি সড়ক থেকে সরছে না। আর এটি কোনো জনপ্রতিনিধিই সরানোরও উদ্যোগ নেননি।

সরজমিনে দেখা যায়, সড়কে ড্রেন ছুঁয়ে পানি বের হচ্ছে অনবরত। সেই পানি প্রায় হাঁটু সমান সড়কে। সেই পানি পার হতে যানবাহনের সাহায্য নিতে হচ্ছে এলাকাবাসীকে।

কতদিন এ অবস্থা চলছে, জানতে চাইলে এলাকার বাসিন্দা সানিন আহমেদ শামীম জানান, প্রায় চার থেকে পাঁচ বছর যাবত্ এখানে পানি জমে আছে। ড্রেনেজ সিস্টেম খারাপ হওয়ায় পানি বের হচ্ছে। পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা না করলে এ সমস্যা দূর হবে না। এর জন্য কেউই কোনো উদ্যোগ নিচ্ছে না বলে তিনি জানান। ড্রেনের পানি যাতে বের না হয় সেজন্য কাউন্সিলর কিছু ঢাকনা তৈরি করেছিলেন। যা কোনো কাজেই আসছে না বলে জানায় এলাকাবাসী। তাদের অভিযোগ, সিটি করপোরেশন থেকে অনেক বার পরিদর্শন করলেও তাতে কোনো অগ্রগতি নেই।

এখানকার আরেক বাসিন্দা জানান, ‘এ এলাকায় কোনো মানুষ সুস্থ অবস্থায় বসবাসেরও মতো অবস্থায় নেই। আগে ইউনিয়ন পরিষদ ছিল এ ওয়ার্ড। তখন কোনো উন্নয়ন হয়নি এখানে। এখন সিটি করপোরেশন হয়ে কোনো লাভ হয়নি এলাকার মানুষের। সব আগের মতোই আছে। আমাদের আগের মতোই কষ্ট করতে হচ্ছে।’

ফিচার বিজ্ঞাপন

ইস্তানবুল ৪দিন ৩ রাত

মূল্য: ২৯,৯০০ টাকা

USA Visa (for Businessman)

মূল্য: 5,000 Taka

Cairo-Alexandria-Aswan & Luxor 8D/7N

মূল্য: 91,900 Taka

এ বিষয়ে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৪৮ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলী আকবর বলেন, তিনি নির্বাচিত হওয়ার আগে থেকেই এলাকার সড়কে এ সমস্যা ছিল। এ বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য তিনি একাধিকবার সিটি করপোরেশনকে জানিয়েছেন। তারপরেও কাজ হচ্ছে না। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৪৮ নম্বর ওয়ার্ডটি দক্ষিণখান, সোনারখোলা, হলান, আনল, বরুয়া, জামুন, আইনুছবাগ এলাকা নিয়ে গঠিত। এ ওয়ার্ডের বেশির ভাগ সড়কই এখনো কাঁচা। আর যেসব সড়ক পাকা করা হয়েছে সেখানেও রয়েছে বড় বড় গর্ত। যেখানে সামান্য বৃষ্টিতেই হাঁটু সমান পানি জমে। এ এলাকায় সিটি করপোরেশনের কোনো উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি।

এছাড়া ওয়ার্ডটি ঘুরে দেখা যায়, মোড়ে মোড়ে সড়কের পাশে স্তূপ করে রাখা হয়েছে ময়লা। যেখান থেকে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। এ বিষয়ে কাউন্সিলর বলেন, এখানে এখনো কোনো ধরনের কাজ হয়নি। এছাড়া ময়লা নেওয়ার জন্য সিটি করপোরেশন থেকে ঠিকমত এখনো গাড়ি মেলেনি। সে কারণে এ সমস্যা হচ্ছে। সিটি করপোরেশন আলাদা করে এসব ওয়ার্ডের জন্য উদ্যোগ না নিলে তিনি কিছু করতে পারছেন না।

প্রাসঙ্গিক কথাঃ “ঢাকা বৃত্তান্ত”প্রচলিত অর্থে কোন সংবাদ মাধ্যম বা অনলাইন নিউজ সাইট নয়। এখানে প্রকাশিত কোন ফিচারের সাথে সংবাদ মাধ্যমের মিল খুঁজে পেলে সেটি শুধুই কাকতাল মাত্র। এখানে থাকা সকল তথ্য ফিচার কেন্দ্রীক ও ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত। “ঢাকায় থাকি”কর্তৃপক্ষ বিশ্বাস করে এসব তথ্য একত্রিত করার ফলে তা ঢাকাবাসীকে সাহায্য করছে ও করবে। আসুন সবাই আমাদের এই প্রিয় ঢাকা শহরকে সুন্দর ও বাসযোগ্য করে গড়ে তুলি। আমরা সবাই সচেতন, দায়িত্বশীল ও সুনাগরিক হিসাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করি।



৪৩ বার পড়া হয়েছে