প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা অর্জনের শেষে সবারই চাকরি নিয়ে একটু চিন্তা হয়। কেমন চাকরি দরকার বা চাকরির জন্য কেমন প্রস্তুতি দরকার এ নিয়ে যেন ভাবনার শেষ নেই। যদিও এটি একটি স্বাভাবিক ঘটনা তবুও যারা নতুন চাকরির জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন তাদের জন্য এটি স্বাভাবিক নয়। ক্যারিয়ার গঠন নিয়ে সঠিক সিদ্ধান্ত না নিলে বাকি জীবন পস্তাতে হবে।

যখন থেকে প্রস্তুতি নেবেন

আপনি কেমন চাকরি পেতে চান তা নিয়ে ছাত্রজীবন থেকেই মনের ভিতরে লালন কারতে থাকুন স্বপ্নকে। আপনি যদি শিক্ষাজীবন থেকে চাকরির প্রস্তুতি নিতে শুরু করেন তাহলে আপনাকে একটু বেশিই পরিশ্রম করতে হবে। উজ্জল ক্যারিয়ারের ছাত্রজীবন থেকেই মেধাবী তালিকায় নাম লিখাতে পারলে ভালো। অর্থাৎ চাকরি না পাওয়া পর্যন্ত একটু বেশিই পরিশ্রম করতে হবে আপনাকে। অনেকেই আছেন যারা মাধ্যমিক বা উচ্চ মাধ্যমিক থেকে চাকরি নিয়ে ভাবেন না। তারা উচ্চশিক্ষার শুরুর সঙ্গে সঙ্গে এ নিয়ে নিয়ে ভাবতে থাকেন। তাদের জন্য বলা, প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার পাশাপাশি চাকরির পরীক্ষার জন্য মানসিক প্রস্তুতির কথা মাথায় রাখবেন। যারা বর্তমানে চাকরি করছে তাদের কাছে এ ব্যাপারে সাহায্য নিতে পারেন।

আপনার লক্ষ্য স্থির করুন

আপনি আপনাকে কর্মজীবনে সফলতার কোন স্থানে দেখতে চান তা আপনাকে আগেই নির্ধারণ করতে হবে। এমন অনেককেই দেখা গেছে যাদের হাতে অনেক সময় থাকে কিন্তু তাদের জন্য সমস্যা হয়ে দাঁড়ায় সময় ব্যবস্থাপনা। এই ব্যপারে যেন আপনি হেরে না যান সে জন্য আপনার দরকার নির্দিষ্ট লক্ষ্য। সময়ের ব্যবস্থাপনায় আপনার দরকার হবে পরিশ্রম ও ধৈর্যের। আপনার লক্ষ্য স্থির হলে আপনি সফল হবেনই। শ্রম, সময়, অর্থ এবং ধৈর্যের সঠিক ব্যবহার আপনাকে আপনার লক্ষ্যে পৌঁছে দিবে।

খোঁজ-খবর নিন

ফিচার বিজ্ঞাপন

US Student Visa

মূল্য: 5,000 Taka

Siem Reap Cambodia 4D/3N

মূল্য: 26,900 Taka

কোন চাকরির জন্য কেমন প্রস্তুতি দরকার, সে সম্পর্কে আপনাকে আগে থেকেই ধারণা নিতে হবে। আপনি যদি আপনি ব্যাংক অফিসার হয়ে যোগদান করতে চান তাহলে আপনাকে ব্যাংকে চাকরির জন্য পরীক্ষার প্রস্তুতি সম্পর্কে ধারণা নিতে হবে। আপনি যে পেশাতেই ক্যারিয়ার শুরু করতে চান সে সম্পর্কে আগে থেকেই খোঁজখবর নিতে থাকুন। আপনি যে পেশায় যেতে চান সেই পেশার জন্য কোনো প্রশিক্ষণের দরকার হলে তা আগে থেকেই সেরে ফেলুন।

সাধারণ জ্ঞানে সচেতন হোন

সাধারণ জ্ঞান আসলে সাধারণ নয় অনেক সময় এই সাধারণ জ্ঞানই অসাধারণ হয়ে দাঁড়ায়। আপনাকে তাই আগে থেকেই প্রস্তুত থাকতে হবে। এ জন্য আপনার প্রয়োজন বাংলা, ইংরেজি, গণিত, তথ্যপ্রযুক্তি, বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি, সাম্প্রতিক দেশ এবং দেশের বাইরে ঘটে যাওয়া বিভিন্ন ঘটনা সম্পর্কে সঠিক ধারণা রাখা। এই বিষয়গুলোকেই এক কথায় বলা যেতে পারে সাধারণ জ্ঞান। চাকরির পরীক্ষায় সাধারণ জ্ঞান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়।

প্রাসঙ্গিক কথাঃ “ঢাকা বৃত্তান্ত”প্রচলিত অর্থে কোন সংবাদ মাধ্যম বা অনলাইন নিউজ সাইট নয়। এখানে প্রকাশিত কোন ফিচারের সাথে সংবাদ মাধ্যমের মিল খুঁজে পেলে সেটি শুধুই কাকতাল মাত্র। এখানে থাকা সকল তথ্য ফিচার কেন্দ্রীক ও ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত। “ঢাকায় থাকি”কর্তৃপক্ষ বিশ্বাস করে এসব তথ্য একত্রিত করার ফলে তা ঢাকাবাসীকে সাহায্য করছে ও করবে। আসুন সবাই আমাদের এই প্রিয় ঢাকা শহরকে সুন্দর ও বাসযোগ্য করে গড়ে তুলি। আমরা সবাই সচেতন, দায়িত্বশীল ও সুনাগরিক হিসাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করি।

কুইক সেল অফার

অবিশ্বাস্য দামে ব্রান্ডের ঘড়ির কিনুন

অবিশ্বাস্য দামে ব্রান্ডের ঘড়ির কিনু...



৮৪৪ বার পড়া হয়েছে