উড়োজাহাজের চলার পথের সব তথ্য জমা থাকে ব্ল্যাক বক্সে। কারিগরি তথ্যসহ পাইলটের উড়োজাহাজ চালানোর খুঁটিনাটি তথ্যও নিয়মিত জমা হয় যন্ত্রটিতে। আর তাই উড়োজাহাজ দুর্ঘটনার পরপরই কারণ জানতে সবাই হন্যে হয়ে খোঁজ করেন ব্ল্যাক বক্সের। কেমন হতো যদি গাড়িতেও এ ধরনের যন্ত্র ব্যবহারের সুযোগ মিলত। ভালো হতো নিশ্চয়ই। কারণ, এর ফলে কম সময়ে দুর্ঘটনার কারণ জানার পাশাপাশি বিমা দাবিও করা যেত সহজে। এমনকি গাড়ি বা চালকের সমস্যা আগে থেকে শনাক্ত করে সতর্ক হওয়ারও সুযোগ মিলত।

অপেক্ষার দিন শেষ হচ্ছে শিগগিরই। গাড়ির জন্য ‘লাইভ ব্ল্যাক বক্স’ তৈরি করেছে দেশের স্টার্টআপ প্রতিষ্ঠান ‘অ্যাক্সিগন’। বিভিন্ন সেন্সরের সমন্বয়ে তৈরি ছোট আকারের যন্ত্রটির পুরো অংশই দেশে তৈরি করা হয়েছে। এমনকি নিজেদের কার্যালয়ে থ্রিডি (ত্রিমাত্রিক) প্রিন্টার দিয়ে যন্ত্রটির বক্সও তৈরি করেছে তারা। এরই মধ্যে বেশ কিছু গাড়িতে যন্ত্রটি পরীক্ষা করা হয়েছে।

থ্রিডি (ত্রিমাত্রিক) প্রিন্টারে যন্ত্রটির বক্স তৈরি হচ্ছে

সুবিধা

  • শখের দামি গাড়ি চালকের হাতে ছেড়ে দুশ্চিন্তায় থাকেন অনেকে। ঠিকমতো গাড়ি চালাচ্ছে তো, তেলের ব্যবহার ঠিকমতো হচ্ছে কিনা কিংবা টাকার বিনিময়ে যাত্রী পরিবহন করছে কি না—এমন নানা চিন্তা এসে উঁকি মারে মনের কোণে। আপনার চিন্তার দিন শেষ হতে চলেছে। অনলাইনে গাড়ির অবস্থানের তথ্যের পাশাপাশি চালকের আচরণের তথ্যও জানান দিতে পারে লাইভ ব্ল্যাক বক্স। অর্থাৎ, গাড়ির অতিরিক্ত গতি, কারণ ছাড়া লেন পরিবর্তন, অন্য যানবাহন বা পথচারীর খুব কাছ দিয়ে যাওয়ার মতো ঘটনা শনাক্ত করে গাড়ির মালিককে সতর্ক করতে পারে যন্ত্রটি। এমনকি চলার পথে চালক হঠাৎ ব্রেক করলে, স্পিডব্রেকারে জোরে উঠলে বা গাড়িতে বেশি ঝাঁকির তথ্যও জানাতে পারে।
  • গাড়ি ট্রাফিক আইন ভঙ্গ করে চলছে কি না, তা–ও শনাক্ত করতে পারে লাইভ ব্ল্যাক বক্সটি। এমনকি গাড়ি চালুর পর কত দূর চলেছে অর্থাৎ পথের দূরত্বের তথ্যও জানাতে পারে।
  • দুর্ঘটনা ঘটার আগে এবং পরের ঘটনার ছবি এবং ভিডিও ধারণ করতে পারে লাইভ ব্ল্যাক বক্স। ফলে সহজেই দুর্ঘটনার কারণ জানার পাশাপাশি বিমাপ্রতিষ্ঠানে প্রয়োজনীয় তথ্য দেওয়া যায়। এর মাধ্যমে আইনি ঝামেলা থেকে মুক্ত থাকার পাশাপাশি দ্রুত বিমার অর্থও পাওয়া যাবে।
  • গাড়ির অবস্থান শনাক্তের পাশাপাশি গাড়িতে থাকা তেলের পরিমাণও জানাতে পারে লাইভ ব্ল্যাক বক্স। ফলে চালক তেল চুরি করতে পারবে না। অনুমতি ছাড়া নির্দিষ্ট এলাকার বাইরে গেলে গাড়ির মালিককে সতর্কবার্তাও পাঠিয়ে থাকে যন্ত্রটি।
  • গাড়ি রক্ষণাবেক্ষণের আগাম তথ্যও জানাতে পারে লাইভ ব্ল্যাক বক্স। অর্থাৎ, গাড়ির ব্রেক, বিভিন্ন ওয়্যারিং, ব্যাটারির কারিগরি ত্রুটি শুরুতেই শনাক্ত করে বার্তা পাঠায় যন্ত্রটি। ফলে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আগেই কারিগরি সমস্যার সমাধান করা যাবে।

প্রাসঙ্গিক কথাঃ “ঢাকা বৃত্তান্ত”প্রচলিত অর্থে কোন সংবাদ মাধ্যম বা অনলাইন নিউজ সাইট নয়। এখানে প্রকাশিত কোন ফিচারের সাথে সংবাদ মাধ্যমের মিল খুঁজে পেলে সেটি শুধুই কাকতাল মাত্র। এখানে থাকা সকল তথ্য ফিচার কেন্দ্রীক ও ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত। “ঢাকায় থাকি”কর্তৃপক্ষ বিশ্বাস করে এসব তথ্য একত্রিত করার ফলে তা ঢাকাবাসীকে সাহায্য করছে ও করবে। আসুন সবাই আমাদের এই প্রিয় ঢাকা শহরকে সুন্দর ও বাসযোগ্য করে গড়ে তুলি। আমরা সবাই সচেতন, দায়িত্বশীল ও সুনাগরিক হিসাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করি।

কুইক সেল অফার

১২৩০ বর্গফুটের দক্ষিণমুখি ফ্ল্যাট মাত্র ৩৭ লক্ষ টাকায়!

১২৩০ বর্গফুটের দক্ষিণমুখি ফ্ল্যাট মা...



৬১ বার পড়া হয়েছে